পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৯ জানুয়ারি ২০১৮

চট্টগ্রাম এলাকার আখ ও আখের সাথীফসল প্রক্রিয়াজাতকরণ শীর্ষক কমশালা অনুষ্ঠিত


প্রকাশন তারিখ : 2018-01-28

বান্দরবান, ২৮ জানুয়ারি, ২০১৮


রবিবার সকালে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সভাকক্ষে বাংলাদেশ সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিটিউটের আয়োজনে  পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকার  আখ ও আখের সাথীফসল প্রক্রিয়াজাতকরণ শীর্ষক  অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক  প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং ।  

এসময় তিনি বলেন,  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়ন বান্ধব সরকার। আওয়ামীলীগ সরকার শুধু স্বপ্ন দেখায় না সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নও করে। আওয়ামীলীগ সরকারের সাফল্যের মধ্যে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ চলমান,পায়রা সমুদ্র বন্দর স্থাপন,ছিটমহল সমস্যার সমাধান, কৃষিখাতে নানা প্রকার উন্নয়ন ও ডিজিটালের ছোয়া লেগেছে,সমুদ্র সীমানা বিজয়,বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের রাষ্ট্রে পরিনত করা,খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি ও খাদ্য
স্বয়ংসম্পূর্নতা,আইসিটি খাতে ব্যাপক উন্নয়ন ও ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মান করছে।

তিনি আরো বব্লেন, শ্রমিকদের মজুরী বৃদ্ধি, ফ্লাইওভার নির্মান  জেলেদের খাদ্য সহায়তা প্রাদান,দারিদ্রতার হার নিম্নপর্যায়, যুদ্ধাপরাধী ও রাজাকারদের বিচার,বয়স্ক ভাতা প্রদান,বিনা মূল্যে শিক্ষার্থীদের বই বিতরন,মাতৃকালীন ভাতা প্রদান,কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান,বিধবা ভাতা প্রদান, দেশের রপ্তানি আয় বৃদ্ধি,মাথা পিছু আয় বৃদ্ধি, উচ্চশিক্ষার হার বৃদ্ধি,গরীব শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান,বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করনসহ নানাবিধ উন্নয়ন সাধিত হচ্ছে।


সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহা পরিচালক ড. মো. আমজাদ হোসেনের সভাপতিত্বে  অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যাান ক্য শৈ হ্লা, বাংলাদেশ সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিটিউটের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও প্রকল্প পরিচালক ড.সমজিৎ কুমার পাল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. শফিউল আলম, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়,কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশন  (কেজিএফ)এর নির্বাহী পরিচালক  ড. ওয়ায়েস কবীর, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ক্য সা প্রু, সদস্য লক্ষীপদ দাশ, সদস্য  মোজাম্মেল হক বাহাদুর, সদস্য কাঞ্চন জয় তঞ্চঙ্গ্যা, সদস্য সিং ইয়ং ম্রো,সদস্য মোস্তফা জামাল, সদস্য ফিলিপ ত্রিপুরা, সদস্য ফতেমা পারুল প্রমুখ।

শেষে তামক চাষ পরিহার করে আখ চাষ করে স্বাবলম্বী হওয়ায় বান্দরবান,রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়ির  ৮ জন চাষীকে সম্মাননা প্রদাান করা হয়।


Share with :

Facebook Facebook